Abdullah Al Mahmud
Abdullah Al Mahmud Lecturer in statistics at Pabna Cadet College

তাতার ও মোঙ্গলরা কি একই জাতি?

তাতার ও  মোঙ্গলরা কি একই জাতি?

তাতাররা নৃতাত্ত্বিকভাবে মোঙ্গলদের থেকে আলাদা। এদের বাস মূলত পশ্চিম মধ্য এশিয়ায়। ১৩শ শতকে এদের বহুসংখ্যক লোক মোঙ্গল বাহিনীতে যোগ দেয়। এদের বসবাসের অঞ্চল মোঙ্গল সাম্রাজ্যের অংশ ছিল। শুরুতে তারাও মোঙ্গলদের মতো যাযাবর জীবন যাপন করত। বাস করত ইয়ার্টে। ইয়ার্ট হলো গোলাকার বহনযোগ্য এক প্রকার তাবু। এছাড়াও তারা মোঙ্গলদের মতো পশু পালনে অভ্যস্ত ছিল।

মোঙ্গল ইয়ার্ট

তবে ভাষাগতভাবে তাতাররা মোঙ্গলদের থেকে আলাদা। গোল্ডেন হোর্ড জাতির সক্রিয় অবস্থানের সময়কালে সবগুলো তাতার গোত্র ইসলাম গ্রহণ করে। তবে বেশিরভাগ মোঙ্গলরা গ্রহণ করে বৌদ্ধ ধর্ম। গোল্ডেন হোর্ড ছিল মোঙ্গল সাম্রাজ্যের সর্বউত্তর-পশ্চিম খানাত বা প্রদেশ।

১৫শ শতকে গোল্ডেন হোর্ড কয়েকটি খানাতে বিভক্ত হয়ে যায়। ভলগার তীরে গড়ে ওঠে কাজান, কাস্পিয়ান সাগরের তীরে আস্ত্রাখান আর কৃষ্ণ সাগরের উত্তর উপকূলে দক্ষিণ ইউক্রেনে আবাস গড়ে ক্রিমীয় তাতাররা। তাতারদের সবচেয়ে পূর্বদিকের রাজ্যের নাম ছিল সিবির। এখান থেকেই সাইবেরিয়া নামটি এসেছে।

এ সময় থেকেই তাদের ভাষা আলাদাভাবে বিকশিত হয়েছে। যদিও তাদেরকে একই নামে ডাকা হত। ১৬শ শতকে আইভান দ্য টেরিবল তাদেরকে পরাভূত করে রাশিয়ার অংশ বানিয়ে নেয়। শুধু ক্রিমীয় তাতাররা উসমানী সাম্রাজ্যের অধীনে থাকে। তাদের থাকে নিজস্ব খান বা শাসক। উল্লেখ্য, খানাত বা প্রদেশের শাসককেই মূলত খান বলা হত।

১৮শ শতকের শেষ দিকে সম্রাজ্ঞী ক্যাথেরিন কৃষ্ণ সাগরের উপকূল জয় করেন। ইতিহাসের বিভিন্ন সময়ে অনেক গোত্রই তাতার নামে পরিচিত ছিল। তবে এখন তারা খুব সীমিত অথবা বিলুপ্ত হয়ে গেছে।

তাতারদের মধ্যে এখন সবচেয়ে বড় গোত্রটি ভলগা তাতার। এরা মূলত বাস করছে রুশ প্রজাতন্ত্র তাতারস্তানের কাজান শহরে। এরা এখনও ইসলাম ধর্ম পালন করে। ভাষাও মধ্য এশিয়ার অন্যান্য অঞ্চলের মতো তুর্ক ভাষাগোত্রীয়। রুশদের নানান অভ্যাসও তারা ধারণ করেছে। এর কারণ ঐতিহ্যগতভাবে তারা ইসবাস অঞ্চলে বাস করত।

উসমানীয় সাম্রাজ্যের অন্তর্গত থাকায় ক্রিমীয় তাতারদের সাথে তুর্কদের মিল ছিল। ২য় বিশ্বযুদ্ধ পর্যন্ত তাদের নিজস্ব সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র ছিল। তবে যুদ্ধে তারা জার্মানদের পক্ষ নেয়। ফলে স্ট্যালিন তাদেরকে সোভিয়েত ইউনিয়নের বিভিন্ন অঞ্চলে বিক্ষিপ্ত করে দেয়। অনেকে আগেই তুরস্কে হিজরত করে।

সামরিক প্রতিভাসহ নানান কারণে ধীরে ধীরে তাতাররা রুশ সমাজেও মর্যাদার স্থান অধিকার করে। অনেক রুশদের বংশীয় নামে তাতারীয় শব্দ পাওয়া যায়। এই যেমন বুলাতভ, মুরাতভ, আখমাতভ, রাখমানিনভ ইত্যাদি। ১৫শ শতকের দিকে কিছু তাতার পোল্যান্ডেও বসতি স্থাপন করে।

বর্তমান মোঙ্গলদের সাথে তাতারদের মিল নেই বললেই চলে। চীনের উত্তরে মঙ্গোলিয়া নামে স্বাধীন দেশে বাস করে তারা। অবশ্য চীনে মোঙ্গলদের সংখ্যা আরও বেশি। চীনে ৫৮ লাখ ও মঙ্গোলিয়ায় ২৪ লাখ। 1 ধর্মসহ নানান ব্যাপারে চীন দ্বারা তারা অনেকটাই প্রভাবিত হয়েছে। তবে তারাই সবচেয়ে দীর্ঘ সময় ধরে যাযাবর জীবন ধরে রেখেছে। ২০শ সাল পর্যন্তও তারা ইয়ার্টে (তাবু) বাস করত। কৃষিকাজ বলতে গেলে করতই না। নির্ভরশীল ছিল পশুপালনের ওপর। 2

  1. মঙ্গোলিয়া জাতীয় পরিসংখ্যান অফিসের তথ্য মতে। 

  2. Quora.com 

comments powered by Disqus